কক্সবাজার, রোববার, ২২ নভেম্বর ২০২০

রোহিঙ্গায় ক্ষতিগ্রস্থ পালংখালীবাসীর মানববন্ধন

উখিয়ার বৃহত্তর মানুষ নাগরিক অধিকার বঞ্চিত

উখিয়া বার্তা ডেস্ক::

মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাকতৃক বিভিন্ন ভাবে মানসিক ও আর্থিক নির্যাতনের শিকার উখিয়ার বৃহত্তর মানুষ আজ নাগরিক অধিকার বঞ্চিত। স্থানীয়দের বসতভিটা, জমিজমা, ফলজ ও বনজ বাগানসহ চলাচলের পথে রোহিঙ্গারা জোর পূর্বক বসতি স্থাপন করে আশ্রয়দাতা গ্রামীণ জনপদের সাধারণ জনগণকে জিম্মি করে রেখেছে।
রোহিঙ্গাদের এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলে এনজিওরা তাদের পক্ষাবলম্বন করে
থানায় ও আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করে মানসিক ভাবে হয়রানি করছে। গতকাল মঙ্গলবার
সকাল ৯ টায় উখিয়ার রোহিঙ্গা অধ্যুষিত জনপদ থাইংখালী স্টেশনে মানববন্ধনোত্তর প্রতিবাদ
সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

উখিয়ার পালংখালী অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার রবিউল হোসেন বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত এনজিও গুলোকে তাদের মোট বরাদ্ধের ৩০ শতাংশ অর্থ স্থানীয়দের উন্নয়নে ব্যয় করার স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে হবে। সরকারের নির্দেশনা অনুসারে রোহিঙ্গা প্রোগ্রামে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে স্থানীয়দের ৭০
শতাংশ কোটা নির্ধারণ করতে হবে। নিয়োগ কার্যক্রমে স্বচ্ছতা আনতে জেলা প্রশাসন ও
স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সমন্বয়ে মনিটরিং সেল গঠন করতে হবে।

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে আন্তরিক হওয়ার জন্য রোহিঙ্গাদের উৎসাহিত করতে হবে এনজিওদের। স্থানীয় জনগোষ্ঠীর চাকুরীর কোটায় সীমানা নির্ধারণ চিহ্নিত করতে হবে। এনজিওতে চাকুরীর নিয়োগক্ষেত্রে সরকারি প্রতিটি দপ্তরে আবেদনের ব্যবস্থা বাধ্যবাধকতা থাকতে হবে। পালংখালী ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবার জন্য আধুনিক হাসপাতাল ও ২৪ ঘন্টা ফ্রি এ্যামবুলেন্স সার্ভিসের ব্যবস্থা থাকতে হবে। উপরোক্ত ৭ দফা দাবী যথাযথ বাস্তবায়ন না হলে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনের মাধ্যমে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কে ব্যরিকেট সৃষ্টির মাধ্যমে এনজিওদের ক্যাম্প বিচ্ছিন্ন করে দাবী আদায় করা হবে।

পথ সভায় বক্তব্য রাখেন, পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী,
পালংখালী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি এম.এ মনজুর, অধ্যাপক ছৈয়দ নুর, এডভোকেট আব্দুল
মালেক, অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির সচিব আব্দুল গফুর নান্নু, সিনিয়র যুগ্ম সচিব আনোয়ার হোসেন, কামাল হোসেন, তাহিদুল আকতার জুয়েল, নুরুল কবির রানা, এডমিনাহুল হক, জসিম উদ্দিন, লোকমান হাকিম, মোঃ তারেক, মোঃ হারুন। পুরো অনুষ্ঠান পরিচালনা করেছেন, রিদুয়ানুল আজিজ।

পাঠকের মতামত: