কক্সবাজার, শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০

নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গাদের ভোটাধিকার নিশ্চিতের আহ্বান

বাংলা ট্রিবিউন : আগামী ৮ নভেম্বর মিয়ানমারের জাতীয় নির্বাচনে রোহিঙ্গাসহ সব জাতিগোষ্ঠীর মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের আট সদস্যরাষ্ট্র। গত শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকে এই আহ্বান জানানো হয়।

বৈঠকে দেশটিতে ৮ নভেম্বরের নির্বাচন, রাখাইনে সহিংস পরিস্থিতি, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি, কফি আনান কমিশনের রিপোর্টের পূর্ণ বাস্তবায়ন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য বাংলাদেশের সঙ্গে অর্থবহ সংলাপ করার জন্য মিয়ানমারকে আহ্বান, দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করা এবং এ সংক্রান্ত সব ধরনের আন্তর্জাতিক উদ্যোগকে সমর্থন করার বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠকের পরে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ডমিনিকান রিপাবলিক, বেলজিয়াম, এস্তোনিয়া, জার্মানি, ফ্রান্স ও তিউনিশিয়া এক যৌথ বিবৃতি দিয়ে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষা ও সহায়তা দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ও এর জনগণের প্রতি সমর্থন ও প্রশংসা পুনর্ব্যক্ত করেন। তবে চীন, রাশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম, নাইজার, দক্ষিণ আফ্রিকা ও সেইন্ট ভিনসেন্ট এই বিবৃতিতে অংশ নেয়নি।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘মিয়ানমারের নির্বাচনের আগে নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার বৈঠক অর্থবহ। কারণ, এর ফলে এই নির্বাচন ও এর ফলাফল নিয়ে সবাই যে আগ্রহী সেটি প্রকাশ পায়।’

আগস্টে নিরাপত্তা পরিষদে ইন্দোনেশিয়া প্রেসিডেন্ট হিসাবে ভূমিকা পালন করছিল, কিন্তু তখন এই বৈঠক করা সম্ভব হয়নি। সেপ্টেম্বরে নাইজার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, নিরাপত্তা পরিষদে প্রতিমাসে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পরিবর্তিত হয় এবং নতুন একজন সদস্য দায়িত্ব নেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘ওই বৈঠকে জাতিসংঘের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন এবং তারা মিয়ানমারের পরিস্থিতি সম্পর্কে নিরাপত্তা পরিষদকে অবহিত করেন।’

বৈঠকে জাতিসংঘ উদ্বাস্তু সংস্থার প্রধান ফিলিপো গ্র্যান্ডি, মিয়ানমার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ক্রিস্টিনা শ্রেনার বার্গেনার ও জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি কানি উইগনারাজা উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত: