কক্সবাজার, শুক্রবার, ৫ মার্চ ২০২১

ইউএনও বরাবর অভিযোগ..

উখিয়ায় আওয়ামী লীগ নেতার উপর হামলা, ইটপাটকেল নিক্ষেপ

নিজস্ব প্রতিবেদক::
উখিয়ার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের হালুকিয়া এলাকায় অবৈধ ভাবে পাহাড় কাটা ও আবাদি জমির মাটি কর্তন পূর্বক পাচারের হিড়িক পড়েছে। বেপরোয়া মাটি পরিবহনের ফলে গ্রামীণ জনপদ লন্ডভন্ড অবস্থায় প্রতিয়মান জনদূভোর্গ চরমে উঠেছে। এনিয়ে প্রতিবাদ করতে গেলে
প্রভাবশালী মাটি পাচারকারী কর্তৃক আ.লীগ নেতার উপর পুলিশের সামনে ইট পাটকেল এবং শারীরিক ও মানসিক ভাবে হয়রানি করার ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা, ভুমি অফিস, পরিবেশ অধিদপ্তর ও উখিয়া থানা বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছে বলে জানা গেছে।
প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগকারী হলদিয়াপালং ইউনিয়নের আ’লীগ নেতা
ওবাইদুল হক ভুট্টো তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছে একই এলাকার মোঃ শফির ছেলে ছাবের আহমদ (৩৫) সম্পূর্ণ বেআইনি ভাবে পরিবেশ বিধ্বংসী কর্মকান্ড করে যাচ্ছে। সে ফসলী জমির মাটি ও পাহাড় কর্তন করে বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে সরবরাহ করে
যাচ্ছে। বেপরোয়া মাটি পরিবহনের ফলে এক দিকে যেমন পরিবেশের অপূরণীয় ক্ষতি হচ্ছে অন্যদিকে ফসল উৎপাদন মারাত্মক ভাবে ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি ভারী যানবাহন দিয়ে মাটি পরিবহনের ফলে গ্রামীণ জনপদে ব্যাপক ভাঙ্গন দেখা দেওয়ায় জন চলাচলে চরম দূভোর্গ পোহাতে হচ্ছে স্থানীয় জনসাধারণকে।
ওই আ’লীগ নেতা অভিযোগ করে সাংবাদিকদের জানান, এনিয়ে প্রতিবাদ করতে গেলে তাকে ধারালো কিরিচ নিয়ে তেড়ে আসে। এমনকি প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যা করার হুমকি প্রদর্শন করায় সে এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সোমবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুর ২টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এস আই কাজী তোবারক হোসেন।
স্থানীয় জনসাধারণ এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযুক্ত পরিবেশ ধ্বংসকারী ছাবের আহমদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করা হয়েছে।
উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিম আহমেদ জানান, এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং তা খতিয়ে দেখার জন্য উখিয়া থানা পুলিশকে নিদের্শ দেওয়া হয়েছে।
উখিয়া থানার এস আই তোবার হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমি নিজে ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেছি। ঘটনার তদন্ত প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তদন্তের পর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মতামত: