কক্সবাজার, শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

যেভাবে কাটছে নিউজিল্যান্ড দলের কোয়ারেন্টাইন

পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে এসেছে নিউজিল্যান্ড দল। ঢাকায় পৌঁছে হোটেলবন্দি দিন কাটছে তাদের। তিন দিনের কোয়ারেন্টাইনে গেছে কিউই দল। কোয়ারেন্টাইনে আছে বাংলাদেশ দলও। কোয়ারেন্টাইনের দিনগুলো কেমন কাটছে নিউজিল্যান্ড দলের? সে অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন দলটির সদস্য হামিশ বেনেট।

হামিশ বেনেট। বাংলাদেশে খেলতে এসেছেন দীর্ঘ ১১ বছর পর। ২০১০ সালে ড্যানিয়েল ভেট্টোরির নেতৃত্বে বাংলাদেশে এসে ‌‘বাংলাওয়াশ‌’ এর তিক্ততা পেয়েছিলেন। সেই সফরে হামিশ বেনেট খেলেছিলেন দুই ম্যাচ।

দীর্ঘ প্রায় একযুগ পর আবার ঢাকায় পা রেখেছেন এই কিউই ক্রিকেটার। এবারের পরিস্থিতি ভিন্ন। করোনাকালে সফরে এসে হোটেলবন্দি হয়েই দিন কাটাতে হচ্ছে। কেমন কাটছে কোয়ারেন্টাইনের সময়টা?

পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে লম্বা সময় পর বাংলাদেশে এসে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন বেনেট হামিশ। এ বছর দেশের বাইরে এটাই বেনেটের প্রথম জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকা। তাই অনুভূতিটাও ভিন্ন। করোনাকালে কোয়ারেন্টাইনে থাকার সময়েও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রশংসা করেন তিনি। বিসিবি তাদের সব ধরনের সুবিধা দিচ্ছে বলে জানান। তিনি বলেন, ‌’ঢাকায় আসার পর থেকে বাংলাদেশ আমাদের ভালোই দেখভাল করেছে। টিম হোটেলে কোয়ারেন্টাইনের সময়টা নিরাপদেই আছি। ঢাকা পৌঁছানোর পর আমাদের কোভিড টেস্ট করানো হয়েছে। আমরা সবাই নেগেটিভ।‌’

কোয়ারেন্টাইনে হোটেল কক্ষে কীভাবে সময় কাটছে তাদের? এমন প্রশ্নে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, ‌’বাংলাদেশে এসে কোয়ারেন্টাইনের সময়টা দারুণ কাটছে। টিভিতে টেস্ট ম্যাচ দেখছি। পাশাপাশি টিভিতে ছবিও দেখছি। খুব মজায় কাটছে।‌’

এদিকে এই সফরে প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ড দলে ডাক পেয়েছেন পেসার বেন সিয়ার্স। হোটেলে তার সময় কাটছে বই পড়ে। বই পড়তে দারুণ ভালোবাসেন এই তরুণ। তিন দিনের কোয়ারেন্টাইনের সময় পেয়ে তাই দারুণ আনন্দিত তিনি। এর আগে একবার বাংলাদেশ সফর করে গেছেন এই পেসার। ২০১৬ সালে যুব বিশ্বকাপে অংশ নিতে বাংলাদেশ এসেছিলেন সিয়ার্স।

এই গতি তারকা ১৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারেন। বাংলাদেশের সামনে বড় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেন এই পেসার।

আরও পড়ুন: মেসিসহ পাঁচ ফুটবলার পেলেন বিশেষ সম্মাননা

এদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে এই সিরিজে জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে নিউজিল্যান্ডে ফিরতে চান পেসার হামিশ বেনেট। বাংলাদেশে বারবার ব্যর্থ হওয়া থেকেই অনুপ্রেরণা খুঁজছেন বেনেট হামিশ। ভুলতে চান ১১ বছর আগের সেই দুঃসহ স্মৃতি। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার ধবলধোলাই হওয়ার কথা মনে করে তিনি ভালো খেলার প্রত্যাশা করেন।

পাঁচ ম্যাচ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে পা রেখে মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) বিমানবন্দর থেকে সোজা হোটেলে চলে গেছে নিউজিল্যান্ড। সেখানে তিন দিনের হোটেল কোয়ারেন্টাইন শেষে তারপর অন্য আনুষ্ঠানিকতা শুরু করবে তারা।

আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের ৫ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এরপর ৩, ৫, ৮ ও ১০ সেপ্টেম্বর সিরিজের বাকি চারটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। সিরিজের প্রতিটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

পাঠকের মতামত: