কক্সবাজার, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১

কক্সবাজারে তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রতিযোগিতায় উখিয়ার রাফিসহ পুরস্কৃত হলো ৩ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক::

আত্মকর্মসংস্থানমুখি উদ্যোক্তা তৈরীর লক্ষ্যে কক্সবাজার জেলার তরুণদের নিয়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে শহরের অভিজাত হোটেলের কনফারেন্স হলে প্রতিযোগিতায় জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে উদ্যোক্তারা অংশ নেয়। তারা প্রত্যেকেই নিজেদের উদ্যোগ/উদ্ভাবনসমূহ উপস্থাপন করে।

ইউএসএআইডির অর্থায়ন ও রিলিফ ইন্টারন্যাশনালের উদ্যোগে ‘ইয়ুথ স্টারটআপ উদ্যোক্তা প্রতিযোগিতা’ শীর্ষক আয়োজনে ১৫ জনের মধ্যে সেরা ৩ জন তরুণ পুরস্কৃত হয়েছেন।

তারা হলেন- ওমর ফারুক (প্লাস্টিকমুক্ত শহর), সাইদুর রহমান (এক্সপ্লোর করি ওয়েব এপ্লিকেশন) ও নাজমা সুলতানা (নীড কালেকশন)।

বিজয়ী তিনজনের প্রত্যেকে পায় সনদ ও ক্রেস্টসহ ১০ হাজার টাকার চেক। এছাড়া প্রত্যেককে সনদ ও গিফট হ্যাম্পার প্রদান করা হয়।

প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন- রিলিফ ইন্টারন্যাশনালের ইউএসএআইডিস ইয়েস এক্টিভিটির ডেপুটি চীফ অব পার্টি শাহানা শারমিন, কক্সবাজার সদরের যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান, ব্র্যাকের জেলা ব্যবস্থাপক অজিত নন্দি, স্কাস টেকনিক্যাল ট্রেইনিং সেন্টারের প্রিন্সিপাল মারুফ বিল্লাহ জাবেদ, সিসিডিবি-ইউএসএআইডি ইয়েস এক্টিভিটি প্রজেক্ট কোঅর্ডিনেটর এস কে মাকসুদুল হাসান ও ইপসা-ইউএসএআইডি ইয়েস এক্টিভিটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ড. শাখাওয়াত উল্লাহ চৌধুরী।

বিজয়ী ৩ উদ্যোক্তা।
এমপাওয়ার সোশ্যাল এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের ইমতিয়াজ আলম তানিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় সম্ভাবনাময় তরুণ উদ্যোক্তাদের মেধাদ্বীপ্ত উদ্ভাবনীসমূহ দর্শকদের আকর্ষণ করে। বিশেষ করে ওমর ফারুকের উপস্থাপিত ‘প্লাস্টিকমুক্ত শহর’ প্রচলিত ধারার বিপরীতে নতুন সম্ভাবনার পথ দেখায়।

এমপাওয়ার সোশ্যাল, সিসিডিবি ও ইপসার সহযোগিতায় ‘ইয়েস একটিভি প্রোগ্রাম’ এর এই কর্মসূচিতে জেলার কয়েকশ তরুণ উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করে। সেখান থেকে বাছাই পর্বে উত্তীর্ণ হওয়া ১৫ জন তরুণ-তরুণী বৃহস্পতিবারের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পায়।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, তরুণরাই সম্ভাবনা, ভবিষ্যত গড়ার কারিগর। ইউএসআইডির ইয়েস অ্যাক্টিভিটি প্রোগ্রাম দীর্ঘদিন ধরে যুব সমাজের দক্ষতা ও উন্নয়ন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। জেলার অসংখ্য তরুণ-তরুণী, সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় অংশ নিচ্ছে। শিক্ষা ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের সাথে যুক্ত হচ্ছে। যার দরূন নিজেদের ক্যারিয়ার নিয়েও বেশ সচেতন হচ্ছে। তৈরি হচ্ছে তরুণ উদ্যোক্তা। তরুণদের উদ্যোগগুলোকে সাধুবাদ জানাতে ইউএসএআইডির ইয়েস এক্টিভিটি প্রোগ্রামের তত্ত্বাবধায়নে সারা জেলায় প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। যেটি মাইল ফলক কর্মসূচি মনে করছেন সংশ্লিষ্টজনেরা।

পাঠকের মতামত: