কক্সবাজার, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

উখিয়া আওয়ামী লীগ নেতার উদ্যোগে পরিবহন শ্রমিকদের মাঝে ইফতার ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

মোহাম্মদ ইব্রাহিম মোস্তফা, উখিয়া বার্তা::

করোনাভাইরা‌স বিস্তার ও সংক্রম‌ণের ঝুঁ‌কি‌ কমাতে যাত্রীবাহি পরিবহন বন্ধ রাখা হয়েছে। আর এ কারণে শ্রমিক কর্মচারীরা অসহায় হয়ে পরেছে। আয় না থাকায় প্রায় ১ মাস ধরে তাদের কষ্টে দিন যাপন করতে হচ্ছে।

১লা মে (শুক্রবার) দিনব্যাপী উখিয়ার ৫টি ইউনিয়নের যানবাহন বাস শ্রমিক ইউনিয়নের ১১০ পরিবার গৃহবন্দী বাস ড্রাইভার ও নিম্ন আয়ের শ্রমিকদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে উখিয়া পরিবহন লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবং উখিয়া উপজেলা জীপ, মিনিবাস, মাইক্রো, টাটা ম্যাজিক সমবায় সমিতির কোষাধ্যক্ষ এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজাপালং ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ বাদশা। প্রত্যেক শ্রমিককে ৫ কেজি চাল, ১কেজি করে আলু, মুড়ি, চুলা, পেয়াজ, রসুন, চিনি, ১ লিটার তেল, ৫০০ গ্রাম করে ডাল, খেজুরসহ ১টি করে সাবান দেওয়া হয়েছে।

এ ত্রাণ বিতরণে সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন উখিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা এবং ইউনিটি ইজ স্টেজের সভাপতি, নাইমুল ইসলাম সাগর।

নুর মোহাম্মদ বাদশা বলেন, সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়া মরণব্যাধি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে পরিবহন বন্ধ রেখে ঘরে থাকার জন্য সরকারী নির্দেশনা রয়েছে। তাই অসংখ্য নিয়মিত অনিয়মিত বাস ড্রাইভার ও শ্রমিক গৃহবন্দী থেকে কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এরা যেহেতু নিম্ম-মধ্যবিত্ত আয়ের পরিবার লজ্জার কারণে কারো কাছে হাত পাততেও পারছেনা। সীমাহীন কষ্টে মানবেতর জীবনযাপন করছে।

কর্মহীন এই শ্রমিকদের পরিবারেরর কথা চিন্তা করে আমার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে এ ত্রাণ বিতরণ করেছি। মানুষের বিপদের সময় মানুষই দাঁড়াবে। আমি চেষ্টা করছি দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে। দেশের বিত্তবানদেরও উচিত যা সম্ভব অসহায় মানুষদের সহায়তা করা।’
শ্রমিকদের মাঝে এ ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

উপস্থিত যানবাহন শ্রমিক পরিবহন লিমিটেডের নেতৃবৃন্দরা বলেন, আমাদের শ্রমিকরা সরকারি নির্দেশ মান্য করে গাড়ি চলাচল বন্ধ রেখেছে এমন মুহুর্তে নুর মোহাম্মদ বাদশাকে এমন উদ্যোগকে ধন্যবাদ জানাই।

এদিকে অসহায় গৃহবন্দী শ্রমিকরা নুর মোহাম্মদ বাদশার ত্রাণ পেয়ে আমরা অত্যন্ত খুশি এবং তার জন্য অন্তর থেকে অসংখ্য দোয়া কামনা করেছেন।

পাঠকের মতামত: