কক্সবাজার, রোববার, ২২ নভেম্বর ২০২০

টেকনাফে পরস্পর ছুরিকাঘাতে জামাই-শ্বাশুড়ী নিহত, শালা আহত

গিয়াস উদ্দিন ভুলু, টেকনাফ::

টেকনাফে পাল্টাপাল্টি হামলায় ছুরিকাঘাত হয়ে জামাই+শ্বাশুড়ী ২জন নিহত। উক্ত ঘটনায় শালা আহত। ১২ ডিসেম্বর দুপুর ১২টার দিকে টেকনাফ পৌরসভা ইসলাবাদ নতুন পল্লান পাড়া এলাকায় এই ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে।

তথ্য সুত্রে জানা যায়,পারিবারিক কলহের জের ধরে ঐ এলাকার মৃত ছৈয়দ হোসেনের পুত্র সোনা মিয়া(৩২) মৃত নবী হোসেনে প্রকাশ নুর হোসেনের স্ত্রী শ্বাশুড়ী তাহামিনা(৪৫) কে বুকে পিটে ছুরিকাঘাত করে। এরপর মুত নবী হোসেনর পুত্র ‘শালা’ জকির(১৬) এসে দুলা ভাই সোনা মিয়াকে ছুরিকাঘাত করে।

এতে পাল্টাপাল্টি হামলায় শালা জকিরও আহত হয়।
এরপর প্রতিবেশী ও স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করে। অবশেষে বিকাল ৩টার দিকে জামাই+শ্বাশুড়ী দুই জনেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর নিয়ে আরো জানা যায়,
নিহত জামাই সোনা মিয়া ওরফে “বউ পাগলা সোনা মিয়া” বহু বিবাহে লিপ্ত ছিল। তার বিয়ে করা একাধিক বউ রয়েছে। তাই তাদের পারিবারিক কলহ ছিল নিত্য-দিনের সঙ্গী। সেই সুত্র ধরে ১২ ডিসেম্বর দুপুর ১২টার দিকে তাদের জামাই+শ্বাশুড়ীর মধ্যে ঝগড়া সৃষ্টির এক পর্যায়ে জামাই শ্বাশুড়ী তাহামিনাকে ছুরিকাঘাত করলে শালা জকির দুলাভাইকে ছুরিকাঘাত করে। উক্ত ঘটনায় শালাও আহত হয়।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে টেকনাফ মডেল থানার এসআই কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার আসল রহস্য বের করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওসি (অপারেশন) রাকিবুল ইসলাম জানান,ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। অভিযোগ পেলে উক্ত ঘটনার সাথে যে সমস্ত অপরাধীরা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পাঠকের মতামত: