কক্সবাজার, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

আরও ২ দিন বৃষ্টির পূর্বাভাস

রাজধানীতে গতকাল বুধবার (৩০ জুন) সন্ধার পর থেকে রাতভর বৃষ্টি গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। সেই সঙ্গে সারা দেশে থেমে থেমে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে একাধিক স্থানে ভারি বর্ষণ হতে পারে। যা আগামী দু’দিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বুধবার (৩০ জুন) রাতে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. আব্দুল হামিদ সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, দেশের প্রায় সব স্থানে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। কিছু কিছু জায়গায় মাঝারি থেকে অতিভারি বর্ষণ হতে পারে। এ ছাড়া রাজধানীতে বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত বৃষ্টি থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।
আবহাওয়াবিদ মো. আব্দুল হামিদ জানান, আগামী দুদিন বৃষ্টিপাতের এ প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ১১৩ মিলিমিটার। এ ছাড়া কতুবদিয়ায় ১০৭ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ৭৩ মিলিমিটার এবং ঈশ্বরদীতে ৭১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিকে বুধবার (৩০ জুন) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।
তাপমাত্রার পূর্বাভাসে বলা হয়, সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।
এ সময় ঢাকায় দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ৮-১২ কিলোমিটারে ওঠে যেতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়।
আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ উত্তর প্রদেশ, বিহার, হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।
এ সময় সারাদেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে সাতক্ষীরায় ৩৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে টাঙ্গাইলে ২৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পাঠকের মতামত: