কক্সবাজার, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪

ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবে প্রাণ গেল ১৫ জনের

ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপে ফেরি ডুবে অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন। নিখোঁজ আছেন ১৯ জন। স্থানীয় সময় রবিবার মধ্যরাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এসব নিশ্চিত করেছে।

ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় অনুসন্ধান ও উদ্ধার সংস্থা সোমবার জানায়, ডুবে যাওয়ার সময় ফেরিটিতে ৪০ জন যাত্রী ছিলেন। ইতোমধ্যে ৬ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিখোঁজ থাকা ১৯ জনের সন্ধান চলছে।

ফেরিতে ঠিক কতজন লোক ছিল তা স্পষ্ট নয়। কারণ ইন্দোনেশিয়ায় একটি নৌকায় যাত্রীর প্রকৃত সংখ্যা ধারণক্ষমতার চেয়ে বেশি হওয়া অস্বাভাবিক কিছু না।

দক্ষিণ-পূর্ব সুলাওয়েসির কেন্ডারি শহরের স্থানীয় অনুসন্ধান ও উদ্ধার সংস্থার প্রধান মুহাম্মাদ আরাফাহ বলেন, ‘দুটি দলে ভাগ করে তল্লাশি চালানো হবে। প্রথম দলটি দুর্ঘটনাস্থলের চারপাশে কাজ করবে। দ্বিতীয় দলটি রাবারবোট এবং লংবোট ব্যবহার করে দুর্ঘটনাস্থলের চারপাশে অভিযান চালাবে।’

১৭ হাজারের বেশি দ্বীপ নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম দ্বীপপুঞ্জ দেশ ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি দুর্ঘটনা প্রায় নিয়মিত ঘটনা। সুমাত্রা দ্বীপের টোবা হ্রদে ২০১৮ সালে একটি মাত্রাতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ফেরি উল্টে ডুবে গেলে ১৯২ জনের মতো মানুষ ডুবে যায়। এ ছাড়া গত বছরের মে মাসে ৮০০ জনেরও বেশি যাত্রী নিয়ে একটি ফেরি পূর্ব নুসা টেঙ্গারা প্রদেশের পানিতে তলিয়ে যায়। এতে কোনও হতাহতের  ঘটনা ঘটেনি।

পাঠকের মতামত: