কক্সবাজার, বুধবার, ৪ আগস্ট ২০২১

উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গৃহবধূর ‘আত্মহত্যা’

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহনন করা তছলিমা বেগম (১৬) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
নিহত তছলিমা বেগম ওই ক্যাম্পের মোবারকের স্ত্রী।

সোমবার (১৯ জুলাই) সকাল ১০টায় মধুরছড়া ৪ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

গতকাল রবিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে দেবর কাশেম মোবারকের লুঙ্গি ধোয়াকে কেন্দ্র করে পুত্রবধূ তছলিমা এবং শ্বাশুড়ি ফাতেমা খাতুনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এরপর রাতে তারা নিজ নিজ রুমে ঘুমাতে যায়। রাত ২টার দিকে শ্বাশুড়ি নাতির কান্না শুনে রুমে গিয়ে দেখতে পায় রশি দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়েছে পুত্রবধু তছলিমা। শ্বাশুড়ির শোর-চিৎকার করার পর আশেপাশের রোহিঙ্গারা জড়ো হয়ে রশি কেটে মরদেহ নিচে নামায়। ভিকটিমের কপাল বরাবর মাথায় চিকন রক্তাক্ত কাটা জখম রয়েছে।

এ ব্যাপারে ক্যাম্পে দায়িত্বরত ১৪ এপিবিএন অধিনায়ক এসপি মো. নাঈম উল হক জানান, গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধু আত্নহত্যার খবর পেয়ে উখিয়া থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়। উখিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশ উদ্ধার করেছে।

পাঠকের মতামত: