কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১

কক্সবাজারে পুলিশের পৃথক অভিযান ৬০ হাজার ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার, আটক ৫

কক্সবাজারে পুলিশের পৃথক অভিযানে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা ও একটি দেশীয় তৈরি এলজি উদ্ধার করেছে পুলিশ। উভয় ঘটনায় মোট ৫ জনকে আটক করা হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুর ১টার দিকে কক্সবাজার শহরের নুনিয়ারছড়া এলাকায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে মাছ ধরার জালের ভিতর থেকে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি তদন্ত বিপুল চন্দ্র দে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় অভিযান চালানো হয়। পরে ওই ঘরে কাউকে পাওয়া না গেলেও ঘরে থাকা জালের ভিতর থেকে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ওই সময় টমটম (অটোরিকশা) নিয়ে এসব ইয়াবা নিতে আসা সন্দেহে চালকসহ দুই জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। আটক হওয়া দুইজন কক্সবাজার সদর থানায় রয়েছে।

অপরদিকে, কক্সবাজারের পেকুয়ায় একটি দেশীয় তৈরি একটি এলজিসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সদস্যরা। এ সময় নগদ ১০ হাজার টাকাও উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) রাত ১১টার দিকে পেকুয়া চৌমুহনী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পেকুয়া উপজেলার পশ্চিম ছিরাদিয়া এলাকার মাস্টার আবুল কাসেমের ছেলে কায়সার উদ্দিন (৪৭), শেখের কিল্লা এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে আবদুর রহমান (২৫) ও পূর্ব বিলহাজ চুড়া এলাকার আক্তার আহমদের ছেলে মো. দিদারুল ইসলাম (৩৫)।

বুধবার দুপুরে কক্সবাজার জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলাম।

মো. রফিকুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদে পুলিশ জানতে পারে যে কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা চৌমুহনী এলাকায় অস্ত্র বেচাকেনা হবে। এ খবরে পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে উপরিউক্ত ব্যক্তিদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেচা-কেনার কথা স্বীকার করেছেন। তাদের কক্সবাজার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: