কক্সবাজার, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪

কক্সবাজারে মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষাকেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষার্থী

 

কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে মায়ের মৃতদেহ বাড়ীতে রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছে সাংবাদিক পুত্র সিফাত।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকালে রামু সরকারী কলেজ কেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে যায় সে।

বুধবার বিকালে না ফেরার দেশে চলে যান তার মা জেসমিন আকতার। মা মারা যাওয়ায় কান্নায় ভেঙে পড়ে বোরহান উদ্দীন সিফাত। কিন্তু মায়ের কথা ভেবে ও স্বজনদের কথামতো পরীক্ষা কেন্দ্রে যেতে রাজি হয় সে।

বোরহান উদ্দিন সিফাত ঈদগাঁহ রশিদ আহমদ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী ও চলমান এইচএসসি পরীক্ষার্থী। সে ঈদগাঁও উপজেলার প্রবীণ সাংবাদিক মৌলানা বদিউর রহমান হাশেমী বদরুর কনিষ্ঠ ছেলে।

বুধবার (১০ জুলাই) বিকাল সোয়া ৫ টার দিকে নিজ বাস ভবনে ইন্তেকাল করেন সিফাতের মাতা জেসমিন আক্তার।

১১ জুলাই সকাল ১০ টায় তার মায়ের জানাজা ও দাফনের সময়ক্ষন নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু একই সময়ে রামু সরকারী কলেজ কেন্দ্রে চলমান এইচএসসি পরীক্ষায় তাকে অংশগ্রহণ করতে হচ্ছে বিধায় মাকে কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত না করেই তাকে ছুটতে হয়েছে পরীক্ষা কেন্দ্রে।

স্থানীয় শিয়া পাড়া কবরস্থানে মাঠে অনুষ্ঠিত জানাজায় রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণীপেশার লোকজন অংশগ্রহণ করেন।
এদিকে সাংবাদিকপত্নী জেসমিনের মৃত্যুতে শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন ঈদগাঁওয়ের কর্মরত সাংবাদিকরা।

পাঠকের মতামত: