কক্সবাজার, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

খাগড়াছড়িতে দেড়শো কোটি টাকার গাঁজা ক্ষেত ধ্বংস

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়িতে প্রায় দেড়শো কোটি টাকা মূল্যের তিনশ বিঘা গাঁজা ক্ষেত ধ্বংস করেছে সেনাবাহিনী। এ সময় মায়া কুমার ত্রিপুরা নামের এক গাঁজা চাষীকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মহালছড়ি উপজেলার দেবতাপুকুর এলাকায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সেনাবাহিনীর সদস্যরা এই বিশাল গাঁজা ক্ষেতের সন্ধান পায়। পরে পুলিশ ও স্থানীয় জনসাধারণের উপস্থিতিতে স্থানীয় প্রশাসন গাঁজা ক্ষেত পুড়িয়ে ধ্বংস করে দেয়।

নিরাপত্তা বাহিনী সূত্রে জানা যায়, গাঁজা চাষের সঙ্গে জড়িত এমন আরোও সাত জনের নাম তারা ইতিমধ্যে পেয়েছেন। তারা হচ্ছেন- জমির মালিক কদু ত্রিপুরা (৪০), গাঁজা চাষি মুক্ত কুমার ত্রিপুরা (৩০), সুদত্ত কুমার ত্রিপুরা (৩০) ও (৩) মঞ্জয় ত্রিপুরা (৩৫), মায়া কুমার ত্রিপুরা (২২), হেরন ত্রিপুরা (৪৫) ও শান্তি ত্রিপুরা (২৫)। এদের মধ্যে মায়া কুমার ত্রিপুরাকে (২২) নিরাপত্তা বাহিনী আটক করতে সক্ষম হয়েছেন।

মহালছড়ি জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর দিদারুল ইসলাম জানান, গহীন অরণ্য ও দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় জনবসতি না থাকার কারণে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলো সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা, অস্ত্র ক্রয়, তাদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য প্রশাসনিক কাজে মাদক ব্যবসা থেকে অর্জিত অর্থ ব্যয় করে থাকে।

কিন্তু সেনাবাহিনী কর্তৃক নজরদারি ও শক্ত গোয়েন্দা কার্যক্রমের ফলে গাঁজা ক্ষেতের সন্ধান পায় মহালছড়ি জোন। যার ফলে গাঁজা ক্ষেতটি ধ্বংশ করা হয়েছে এবং এমন আরো গাঁজা ক্ষেত এ অঞ্চলে আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পাঠকের মতামত: