কক্সবাজার, শনিবার, ১৯ জুন ২০২১

টেকনাফে দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সহোদরের উপর হামলা, গ্রেফতার ৩

কক্সবাজারের টেকনাফের বাহারছড়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া সহোদর অতর্কিত হামলার শিকার ও রক্তাক্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার বাহারছড়া উত্তর শীলখালী এলাকার মৃত জাফর আলমের দুই ছেলে বৃহস্পতিবার পাশ্ববর্তী মসজিদে মাগরিবের নামাজ শেষ করে বের হন। মসজিদ থেকে বের হওয়ায় সাথে সাথেই স্থানীয় ইউপি সদস্য সোনালী মেম্বারের নেতৃত্বে ৭/৮ জন দুর্বৃত্ত তাদেরকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে এবং এলোপাতাড়ি মারধর ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন।

আহতরা হলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সেলিম উল্লাহ ও তার বড় ভাই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ইতিহাস বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আজিজ উল্লাহ।

স্থানীয় লোকজন আহত দুই সহোদরকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।
আহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আজিজ উল্লাহ জানান, মসজিদে নামাজ পড়ে বাহিরে বের হওয়ার পরপরই কিছু বুঝে উঠার আগে ধারালো দা, ছুরি ও ইট নিয়ে সোনালী মেম্বারের নেতৃত্বে তার রহিম উল্লাহ, হেলাল উদ্দিন, ফায়সালসহ ৭/৮ জন তাদের উপর হামলা করে।

তিনি আরও জানান, আমাদের স্বত্ত্ব দখলীয় জমির উপর দিয়ে জোর করে সোনালী মেম্বার প্রভাব খাটিয়ে ব্যক্তিগত একটি রাস্তা নির্মাণ করেছে।

এনিয়ে প্রতিবাদ করায় এবং সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি ত্রাণ চুরির বিষয়ে কথা বলার জের ধরে ক্ষুব্ধ হয়ে পরিকল্পিতভাবে এই হামলার ঘটনাটি ঘটিয়েছে।
এ ব্যাপারে মামলার প্রক্রিয়া রয়েছে বলে জানা যায়।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, ঘটনার পর পরই অভিযান চালিয়ে জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জড়িত বাকিদের গ্রফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

পাঠকের মতামত: