কক্সবাজার, শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

তেলসমৃদ্ধ সিরিয়ায় আরেকটি সামরিক ঘাঁটি বানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

বছর দুয়েক আগে সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছিলেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে যেকোনো কারণে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন তিনি। উল্টো মোতায়েন করা হয় বাড়তি সেনা সদস্য। এবার তেলসমৃদ্ধ দেশটিতে নতুন আরেকটি সামরিক ঘাঁটি নির্মাণ শুরু করেছে মার্কিনিরা।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সানার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দেশটির হাসাকা প্রদেশের ইয়ারুবায় নতুন ঘাঁটি বানাচ্ছে মার্কিন সামরিক বাহিনী।

এলাকাটি ইরাক সীমান্তের কাছাকাছি অবস্থিত। ঘাঁটি তৈরির জন্য এরইমধ্যে প্রয়োজনীয় সামরিক সরঞ্জামাদি সেখানে পৌঁছে গেছে।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সূত্রের বরাতে সানা জানিয়েছে, হাসাকা শহরের উত্তর-পূর্বে অবস্থিত আল-মালিকিয়া এলাকা থেকে ১০টি ট্রাকে করে এসব সরঞ্জাম নেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, তারা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্যই সিরিয়ায় সামরিক বাহিনী পাঠিয়েছে।

তবে সমালোচকদের মতে, দেশটির বিপুল তেল সম্পদ লুটপাটের জন্যই মার্কিন বাহিনী মোতায়েন রাখা হয়েছে।

জানা যায়, ২০১৯ সালে ট্রাম্প সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন। কিন্তু পরে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে ওই বছরের অক্টোবরেই দেশটিতে নতুন করে সেনা মোতায়েন করা হয়।

সেসময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক স্বার্থরক্ষার খাতিরেই সিরিয়ার তেলক্ষেত্রগুলোতে সেনা মোতায়েন করা হচ্ছে।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির আল-তানফ অঞ্চলে আগে থেকেই একটি সামরিক ঘাঁটি রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। ২০১৬ সালে সিরীয় গৃহযুদ্ধ বন্ধ করার দাবিতে এ ঘাঁটি গেঁড়েছিল মার্কিনিরা।

পাঠকের মতামত: