কক্সবাজার, শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২

নারকেল ধার দেয়ায় মাকে পিটিয়ে ঘর থেকে বের করে দিলেন সন্তান!

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সেতেরা বেগম (৩৬) নামে এক জননীকে পিটিয়ে ঘর থেকে বের করে দিলেন আরফাত হোছাইন নামে তারই গর্ভজাত সন্তান। এ সময় তার স্বামী নুর মুহাম্মদও ছেলের সাথে যোগ দিয়ে স্ত্রীকে মারধর করে আহত করেন।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) রাত ৯ টার দিকে উপজেলার শিলখালী ইউনিয়নের সেগুনবাগিচার ঢালার মুখ এলাকায় অমানবিক এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রাত ৯ টার দিকে আরফাত বাড়িতে আসে পরে তার মাকে মারধর করে বাড়ি থেকে বাহির করে দেন। এসময় তার মা তাকে অনেক মিনতি করে বলেন আমাকে এই শীতের মধ্যে বাহির করে দিয়োনা। একথা শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে তাদের সামনে। কিছু সময় পরে তার বাবা বাড়িতে ফেরে তিনিও কথা গুলো শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে ছেলে ও বাবা মিলে স্ত্রী ও অপর ছেলেদের মারধর করেন বাড়ি থেকে করে দেন।

আহত মা বলেন, বিকেলে পাশের বাড়ির এক নারী আমার কাছ থেকে একটা নারকেল ধার নেয়। পরে আমার মেজ ছেলে বাড়িতে আসে। আমার কাছে জিজ্ঞেস করেন নারকেল একটা কোথায় তখন আমি বলেছি পাশের বাড়িতে ধার দিয়েছি। এ কথা শুনে আমার ছেলে আরফাত ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে মন্দ ভাষায় কথা করে এক পযার্য়ের আমার গায়ে হাত তোলে। পরে আমাকে ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেন। কিছু সময় পরে আমার স্বামী বাড়িতে আসে আমাকে বাহিরে দেখে জিজ্ঞেস করে বাহিরে কেন, আমি সব ঘটনা আমার স্বামীকে বলি। আমার স্বামী কথা গুলো শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে আবারো এলোপাতাড়ি মারধর করে আমাকে। বাবা ছেলে মিলি আমাকে সহ দুই ছেলেকে পিটিয়ে বাড়ির বাহির করে দেন। আমি পিতার বাড়িতে চলে আসি। আমি প্রশাসনের কাছে এর সঠিক বিচার চাই।

পাঠকের মতামত: