কক্সবাজার, সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

ফৌজদারহাটে নারী-শিশুসহ ১৯ রোহিঙ্গা আটক

সীতাকুণ্ড উপজেলার ফৌজদারহাট উপকুল থেকে ১৯ রোহিঙ্গা নারী, শিশু ও পুরুষকে আটক করেছে পুলিশ। তারা নোয়াখালীর ভাসানচর থেকে পলিয়ে আসে। বুধবার বেলা এগারোটার সময় একটি বোটে করে সলিমপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ফৌজদারহাট উপকুল এলাকায় আসলে স্থানীয়রা তাদেরকে আটক করে পুলিশে খবর দিলে ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা তাদেরকে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। আটকদের মধ্যে ৮ শিশু, ৪জন নারী ও ৮জন পুরুষ রয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোস্তাকিম আরজু বলেন, একটি বোটে করে ২১জন শিশু, মহিলা ও পুরুষ ফৌজদার হাট সাগর উপকুল এসেছে শুনে আমি দ্রুত সেখানে গিয়ে তাদেরকে আটক করে বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানায়। বোটে করে ২১জন আসলেও সেখান থেকে দুইজন যুবক পালিয়ে যায় ১৯ জনকে আটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে আবদুল হাবীব নামের একজন বলেন, তারা গত রবিবার আসরের পর নোয়াখালীর ভাসানচর থেকে ২১ জনের দল জনপ্রতি ১৩ হাজার টাকা করে বোট ভাড়া করে চারদিন সাগরে ভেসে ফৌজদারহাট উপকুল আসে। বোট থেকে তাদেরকে নামিয়ে দিয়ে মাঝি বোট নিয়ে দ্রুত চলে যায়। আবদুর হাবীব আরো বলেন, ভাসানচরে আমাদের খুব কষ্ট হচ্ছে তাই আমরা কক্সবাজারে আগের জায়গাতে চলে যাচ্ছিলাম।

এব্যাপারে ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই জহিরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সালাউদ্দীন আজিজ এর কাছ থেকে খবর পেয়ে ফৌজদারহাট সাগর উপকুল থেকে শিশু, নারী ও পুরুষ মিলে ১৯জন রোহিঙ্গাকে আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসি। জানা গেছে ২১জন বোট করে আসার পর সেখান থেকে ২জন পালিয়ে যায়। আটক রোহিঙ্গাদেরকে থানায় হস্তান্তর করা হবে।

পাঠকের মতামত: