কক্সবাজার, শনিবার, ১৯ জুন ২০২১

ভারতে তিন দিনে ১০ লাখ করোনা রোগী, মৃত্যু সাড়ে ৭ হাজার

নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে পর্যুদস্ত প্রতিবেশী দেশ ভারত। গত তিন দিনে দেশটিতে ১০ লাখের বেশি মানুষের করোনা ধরা পড়েছে এবং সাড়ে সাত হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার দেশজুড়ে তিন লাখ ৪৯ হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয় এবং এদিন করোনায় মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৭৬০ জনের।

এর মধ্য দিয়ে টানা চতুর্থ দিন ভারতে তিন লাখের বেশি মানুষের করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হলো আর মৃত্যু সংখ্যা দুই হাজারের বেশি রয়েছে টানা পাঁচদিনের মতো।

বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতির তুলনায় ভারত বর্তমানে সবচেয়ে নাজুক অবস্থানে রয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে গতকাল শনিবার ৬৩ হাজার ২০৬ জনের করোনা ধরা পড়ে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া আর কোনো দেশেই ৫০ হাজারের বেশি সংক্রমণ চিহ্নিত হয়নি।

এ ছাড়া ভারতের প্রতিবেশী দেশগুলোর অবস্থাও ততটা ভয়াবহ নয়। শুক্রবার পাকিস্তানে পাঁচ হাজার ৮৭০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এদিকে যথাক্রমে বাংলাদেশ নেপাল ও শ্রীলঙ্কায় গত একদিনে দুই হাজার ৬৯৭, দুই হাজার ৪৪৯ এবং ৯৬৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

গত ৬ এপ্রিল থেকে দৈনিক ভারতে লাখের বেশি করোনা রোগী পাওয়া যাচ্ছে।

রাজ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক করোনা পরিস্থিতি চলছে মহারাষ্ট্রে। শনিবার সেখানে ৬৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং ৬৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে, রাজধানী দিল্লির করোনা পরিস্থিতিও ভয়াবহ। করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৩৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালগুলোতে উপচেপড়া করোনা রোগীর ভিড়। অক্সিজেন সংকটে মৃত্যু হচ্ছে বহু মানুষের। গতকাল দিল্লির একটি হাসপাতালে অক্সিজেন না পেয়ে ২৫ করোনা রোগীর মৃত্যু হয়। রাজধানীতে চলমান লকডাউন আরও এক সপ্তাহের জন্য বাড়ানো হতে পারে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: