কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১

ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা তিন দালালসহ আরও ১৩ রোহিঙ্গা আটক

নোয়াখালীর ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা ৩ শিশুসহ আরও ১০ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। এসময় রোহিঙ্গাদের পালাতে সাহায্যকারী দালাল চক্রের তিন সদস্যকেও আটক করা হয়।

রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে তাদেরকে উপজেলার ইছাখালী এলাকা থেকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছেন জোরারগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন।

আটক রোহিঙ্গারা হলেন- নূরজাহান বেগম (২০), রেহানা আক্তার (১৯), আছিয়া বেগম (১৮), নূর খাইয়াছ (২৫), মিনারা বেগম (২০), মনিয়া বেগম (২০), কহিনা আক্তার (৩২), জিসান (১০), জান্নাতুল নাঈমা (৮) ও জেসমিন আক্তার (১২)।

আটক দালাল চক্রের সদস্যরা হলেন- নোয়াখালীর সুবর্ণচরের বেলাল হোসেন (২৮), একই এলাকার মো. জুয়েল (২০) ও সন্দ্বীপের দিদারুল আলম (২১)।

এর আগে রবিবার (৩০ মে) সকাল পৌনে ৯টার দিকে সন্দ্বীপের পশ্চিম মাইটভাঙ্গা চৌধুরী বাজার এলাকা থেকে ১৪ জন এবং গত ১৮ মে স›দ্বীপের রহমতপুর থেকে ১১ জন রোহিঙ্গাকে আটক করে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ। তারাও ভাসানচর থেকে পালিয়ে সন্দ্বীপ হয়ে কক্সবাজার ক্যাম্পে যাওয়ার চেষ্টা করেন বলে জানিয়েছে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ।

জোরারগঞ্জ থানার পরিদর্শক হেলাল উদ্দিন বলেন, দালাল চক্রের সাহায্যে সাগর পাড়ি দিয়ে জোরারগঞ্জ হয়ে চট্টগ্রাম যাওয়ার সময় তাদের আটক করা হয়। আটককৃত রোহিঙ্গারা সকলেই নারী। এদের মধ্যে তিনজন শিশু রয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করেছে। এর মধ্যে একটি দালাল চক্রের বিরুদ্ধে মানবপাচার আইনে এবং অন্যটি রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অভিবাসী আইনে।

পাঠকের মতামত: