কক্সবাজার, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১

রোহিঙ্গা ইস্যুর স্থায়ী সমাধানে সোচ্চার হবে কংগ্রেস

মার্কিন কংগ্রেসে পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির প্রভাবশালী সদস্য ফ্লোরিডার কংগ্রেসম্যান (ডেমক্র্যাট) টেড ডেচ বলেছেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন, সন্ত্রাস দমন এবং রোহিঙ্গাসহ আন্তর্জাতিক-আঞ্চলিক এবং দ্বিপাক্ষিক ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশের বিদ্যমান সম্পর্ককে আরও জোরদার করতে সচেষ্ট থাকবেন।

গত ৫ এপ্রিল ফ্লোরিডা সফরকালে এই কংগ্রেসম্যানের সাথে সাক্ষাৎ ঘটে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলামের। সে সময়েই কংগ্রেসম্যান টেড প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিকতার প্রশংসা করেন বাস্তুচ্যুত ১১ লক্ষাধিক রোহিঙ্গাকে আশ্রয় প্রদানের জন্যে। এমন একটি মানবিক সংকটের স্থায়ী সমাধানে সহকর্মীদের সাথে নিয়ে কংগ্রেসে সোচ্চার থাকার সংকল্পও ব্যক্ত করেন ডেমক্র্যাটিক পার্টির এই কংগ্রেসম্যান।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের নির্বাচনে কংগ্রেসম্যান যোসেফ ক্রাউলি জয়ী হতে না পারায় ককাসের সাংগঠনিক অবস্থা ঝিমিয়ে পড়েছে। কারণ নিউইয়র্কের কংগ্রেসম্যান ক্রাউলি ছিলেন এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা-চেয়ারম্যান। ক্রাউলির আসনে জয়ী আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিয়ো-করতেজকে এ ব্যাপারে প্রবাসীদের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। তবে তিনি জাতীয় রাজনীতিতে এতটাই ব্যস্ত যে, বাংলাদেশ ককাসের ব্যাপারটি আন্তরিক অর্থে আমলে নিতে সক্ষম হচ্ছেন না।

এছাড়াও রাষ্ট্রদূত শহীদুলের সম্মানে ৫ এপ্রিল ফ্লোরিডাস্থ বাংলাদেশ এসোসিয়েশন এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল ওয়েস্ট পামবীচের বয়েন্টন বীচে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গিকারের পরিপূরক মায়ামীতে বাংলাদেশ কন্স্যুলেট জেনারেলের পূর্ণাঙ্গ অফিস স্থাপনের অভিপ্রায়ে সরেজমিন পরিভ্রমণ করতেই রাষ্ট্রদূত শহীদুল সেখানে গিয়েছিলেন।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে কমিউনিটির বিশিষ্টজন ছাড়াও এ অনুষ্ঠানে এসেছিলেন ওয়েস্ট পামবীচের মেয়র কীথ জেমস, বয়েন্টনবীচের মেয়র স্টিভেন গ্র্যান্ট, পাহকি সিটির মেয়র কীথ ব্যাব, বেলে গ্লাডের মেয়র স্টিভ উইলসন এবং সাউথ বে সিটির মেয়র যো কাইল।

আরও ছিলেন ব্রায়ার্ড কাউন্টি কমিশনার ডেলে হোলনেস এবং ওয়েস্ট পামবীচ কাউন্টির কমিশনার ক্রেগ কে উইস।

সিটি মেয়র এবং কাউন্টি কমিশনারেরা বাংলাদেশের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হোস্ট সংগঠন ‘বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব ফ্লোরিডা’র প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ জহীর। বিশিষ্টজনদের মধ্যে আরও ছিলেন জুনায়েদ আকতার, এম ফজলুর রহমান, আব্দুল ওয়াহেদ মাহফুজ। অনুষ্ঠানে বিপুল করতালির মধ্যে রাষ্ট্রদূত শহীদুলকে ব্র্ওায়ার্ড কাউন্টির চাবি প্রদান করেন কমিশনার। বিডি প্রতিদিন

পাঠকের মতামত: