কক্সবাজার, বুধবার, ৪ আগস্ট ২০২১

সাংবাদিক পরিচয়ে ইয়াবা পাচার, পুলিশের জালে ধরা ৪ জন

পেটের ভেতরে করে ইয়াবা পাচারের অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের তিনজনের পাকস্থলী থেকে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবা পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আজ সোমবার তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি টোল প্লাজায় একটি যাত্রীবাহী বাস থেকে তাদের আটক করা হয়।

তারা হলেন- ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের বাসিন্দা মো. ওহিদুল শিকদার, মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদী থানার খাসকান্দি মধ্যচড় গ্রামের জোসনা আক্তার, নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানার হামসাদী এলাকার হোসনা আক্তার ও ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের দোলেশ্বর পূর্বপাড়ার মো. আব্দুল বাতেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনওয়ারুল আজিম।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক পরিমল দাশ জানান, রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় গোপন সংবাদে দাউদকান্দি টোল প্লাজায় একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিযান পরিচালনা করি। এ সময় একজন পুরুষ ও দুজন নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা জানায় তাদের পেটের ভেতরে স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ইয়াবা রয়েছে।

পরে নগরীর একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এক্সরে করে তাদের পেটে ইয়াবা থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হই।
৪ মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে ৩ জনের পাকস্থলী থেকে ৬৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করি। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে আসামি আবদুল বাতেন নিজেকে সবুজ বাংলা পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে অন্যদের দিয়ে ইয়াবা পাচার করতেন। সোমবার আসামিদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের শেষে আদালতে নিলে বিচারক তাদের কারাগারে প্রেরণ করেন।

পাঠকের মতামত: