কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

‌‘লকডাউন’ অমান্য করায়

সাতদিনে উখিয়ায় ১২২ মামলায় ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা জ‌রিমানা, কারাদণ্ড ৩

মোহাম্মদ ইব্রাহিম মোস্তফা, উখিয়া বার্তা ডটকম::

কক্সবাজারের উখিয়ায় স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও লকডাউনের বিধিনিষেধ ভঙ্গ করায় ১ থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত সাতদিনে ১২২ মামলায় ১ লক্ষ ৭৬ হাজার টাকা জরিমানা ও ৩ জনকে বিনাশ্রমে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মহামারি করোনা সংক্রমণ রোধে সারাদেশে সরকার ঘোষিত এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধের সপ্তম দিনেও সকাল উপজেলা প্রশাসনের সাথে টহল দেয় র‍্যাব, বিজিবি, পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও আনসার সদস্যরা।

রোদ আর গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির মধ্যে উখিয়া দারোগা বাজার, কোট বাজার, মরিচ্যা বাজার, সোনারপাড়া বাজার, কুতুপালং বাজার, বালুখালী বাজার, থাইংখালি বাজার ও পালংখালী বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা প্রশাসন এবং রাস্তায় বের হওয়া লোকজন ও যানবাহন আটকে ঘর থেকে বের হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করেন। সদুত্তর না পেলে যাত্রীদের ফিরিয়ে দেয়া হয়। এছাড়া বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের গুণতে হয়েছে জরিমানা।

প্রথম দিন বৃহস্পতিবার ১২ মামলায় ১৩৫০০ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়৷ দ্বিতীয় দিন শুক্রবার ২৯ মামলায় ২৪১০০ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। তৃতীয় দিন শনিবারও ১২ মামলায় ১৩ হাজার ৫০০ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। রবিবার ১৫ টি মামলায় ২১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। সোমবার ১১ মামলায় ১৬ হাজার ৭’শ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। মঙ্গলবার ২১ টি মামলায় ৫৯ হাজাট টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।

আজ বুধবারও ২২ টি মামলায় ২৮ হাজার ২’শ টাকা। এর আগে শনিবার তিনজনকে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দাওয়া হয়।

গত শনিবারের কারাদণ্ড প্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের সিকদার বিল এলাকার সোলতান আহমদের ছেলে ওসমান সরওয়ার(৩৩) কে একমাসের বিনাশ্রম এক মাসের ও হলদিয়াপালং ইউনিয়নের হাতির ঘোনা এলাকার ওলা মিয়ার ছেলে বশির(৩৫) কে ১৫ দিনের এবং রত্নাপালং ইউনিয়নের খুন্দকারপাড়ার ইয়াছিনের ছেলে শফিউল করিমকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামুদ্দিন আহমেদ বলেন, যারা লকডাউনের বিধিনিষেধ অমান্য করছেন তাদের আইনের আওতায় নিয়ে জেল-জরিমানা করা হচ্ছে।
এছাড়া জনসাধারণকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে সচেতন করা ও জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে না বের হতে বলেন৷ অভিযানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অংশ নেন।
তিনি আরও বলেন, লকডাউনের পুরো সময়জুড়ে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে৷

পাঠকের মতামত: