কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২

সূর্য উঠার আগে জানাযার নামাজ পড়ার বিধান কি?

 

ফজরের নামাযের পর সূর্য ওঠার আগে কোনো নফল পড়া যায় না, কিন্তু জানাযার নামায পড়া যায়; তা পড়া মাকরূহ নয়। হযরত নাফে রাহ. বলেন-

أَنّ ابْنَ عُمَرَ كَانَ يُصَلِّي عَلَى الْجِنَازَةِ بَعْدَ الْعَصْرِ، وَبَعْدَ الصّبْحِ إِذَا صُلِّيَتَا لِوَقْتِهِمَا.

আছর ও ফজরের নামাযের পর হযরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর রা. জানাযার নামাযে অংশগ্রহণ করতেন। যদি জানাযা এই দুই নামাযের ওয়াক্তের মধ্যে পড়া হত। (মুআত্তা ইমাম মুহাম্মাদ, হাদীস ৩১৩)

মা‘মার রাহ. হাসান বসরী ও কাতাদা রাহ. থেকে বর্ণনা করেন-

عَنِ الْحَسَنِ، وَقَتَادَةَ كَانَا يُصَلِّيَانِ عَلَى الْجَنَائِزِ بَعْدَ الْعَصْرِ وَالصّبْحِ مَا كَانَا فِي وَقْتٍ.

ফজর ও আছরের নামাযের পর এই দুই নামাযের ওয়াক্ত বাকি থাকলে জানাযার নামায পড়তেন। (মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, হাদীস ৬৫৬২)

সুতরাং ফজরের নামাযের পর সূর্য ওঠার আগে জানাযার নামায পড়ার কারণে আপনাদের নামায মাকরূহ হয়না। ফজরের সময় থেকে সূর্য ওঠার আগ পর্যন্ত নফল পড়া যায় না বলে জানাযাও পড়া যাবে না- এমন ধারণা করা ঠিক না। মাসআলা বিজ্ঞ আলেম থেকে জেনে নিয়ে আমল করা উচিত। নিজ থেকে ধারণা বশত আমল করা বা মন্তব্য করা থেকে বেঁচে থাকা কর্তব্য।

-কিতাবুল আছল ১/১২৬; শরহু মুখতাসারিত তাহাবী ১/৫৪৩; তুহফাতুল ফুকাহা ১/১০৬; তাবয়ীনুল হাকায়েক ১/২৩২; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ২/১৭; খুলাসাতুল ফাতাওয়া ১/৬৮; ফাতহুল কাদীর ১/২০৭; শরহুল মুনইয়া, পৃ. ২৩৮; রদ্দুল মুহতার ১/৩৭৫

পাঠকের মতামত: