কক্সবাজার, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪

সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচল বন্ধ, আটকা হাজারো পর্যটক

বৈরী আবহাওয়ার কারণে সমুদ্রবন্দরে ২ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত জারি করায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-পথে জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

রোববার (১৯ মার্চ) সকাল থেকে টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট থেকে পর্যটকবাহী কোনো জাহাজ সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়নি। সকালেই টেকনাফ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নৌ-পথে জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে।

এদিকে, সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে জাহাজ না যাওয়ায় প্রায় এক হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিনেই আটকা পড়েছে, যাদের আজ ফেরার কথা ছিল। তবে এ নিয়ে পর্যটকদের কোনো আতঙ্ক নেই বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারী সিন্দাবাদ ও কেয়ারী ডাইন অ্যান্ড ক্রুজের ব্যবস্থাপক মো. শাহ আলম বলেন, সাগর উত্তাল এবং ২ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত থাকায় জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে ভ্রমণে গিয়ে দ্বীপে থেকে যাওয়া প্রায় এক হাজারের মতো পর্যটক আটকা রয়েছেন। তারা বিভিন্ন হোটেল-মোটেলে নিরাপদে রয়েছেন। সাগর স্বাভাবিক হলে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে।

অপরদিকে, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে রোববার প্রায় পাঁচ শতাধিক পর্যটক সেন্টমার্টিন যেতে পারেনি। ফলে যাত্রীদের টিকিটের টাকা ফেরত দিতে হয়েছে।

সেন্টমার্টিন দ্বীপের বাসিন্দা ও টুরিজম ব্যবসায়ী নুর মোহাম্মদ বলেন, হাজারো পর্যটক এখনো দ্বীপে অবস্থান করছে। আমার কটেজে যেসব পর্যটক রয়েছেন, তারা দুদিনের জন্য কক্ষগুলো ভাড়া নেন। যেহেতু সমুদ্র উত্তাল তাই তারা সেখানেই অবস্থান করছেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই তারা ফিরে যেতে পারবেন।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামান বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সেন্টমার্টিন যাতায়াত বন্ধ রাখতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে বলা হয়েছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে যাতায়াত ফের শুরু হবে। দ্বীপে ভ্রমণে গিয়ে আসতে না পারা পর্যটকদের সুবিধা-অসুবিধার বিষয়গুলো নজরে রাখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

পাঠকের মতামত: