কক্সবাজার, শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২

সেন্ট মার্টিনে ২৫ ও ২৬ ডিসেম্বর পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধের নির্দেশ

কক্সবাজারের টেকনাফে চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ও পৌর নির্বাচনের ভোটগ্রহণ আগামী ২৬ ডিসেম্বর। এ নির্বাচনের কারণে টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

নির্বাচনে নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ২৫ ও ২৬ ডিসেম্বর টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌ রুটে সকল পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকবে। ফলে দেশি-বিদেশি কোনো পর্যটক প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিনে ভ্রমণে যেতে পারবেন না।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী। তিনি বলেন, নির্বাচন ঘিরে নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ২৫ ও ২৬ ডিসেম্বর এই রুটে কোনো পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল করবে না। তবে ২৫ ডিসেম্বর দ্বীপে কোনো পর্যটক থাকলে তাদেরকে জাহাজ পাঠিয়ে নিয়ে আসা হবে। এছাড়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে ২৭ ডিসেম্বর থেকে আবার পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হবে।

এদিকে ২৬ ডিসেম্বর টেকনাফ পৌরসভা ও বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণের কথা রয়েছে। এছাড়া বৈরী আবহাওয়ার কারণে প্রথম ধাপের স্থগিত থাকা সেন্ট মার্টিনেও একই দিনে ভোটগ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) টেকনাফ অঞ্চলের ট্রাফিক সুপারভাইজার জহির উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, নির্বাচনের কারণে পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য দুই দিন টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌরুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখা হবে। তবে নির্বাচনের প্রয়োজনীয় মালামাল নিতে একটি জাহাজ চলাচল করবে।

টেকনাফ পৌর নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. বেদারুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে ২৫ ও ২৬ ডিসেম্বর টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌ রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে। দুই দিন জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকবে। এছাড়া অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্ন করতে আমরা সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছি।

ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব কক্সবাজারের (টুয়াক) সভাপতি আনোয়ার কামাল জানান,  জেলা প্রশাসন একটি সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। কারণ নির্বাচন চলাকালীন  সহিংসতার ঘটনা ঘটতে পারে, এটি পর্যটকদের জন্য ঝুঁকি ছিল।

পাঠকের মতামত: