কক্সবাজার, রোববার, ৩ মার্চ ২০২৪

স্নরণ সভায় বক্তারা:মোজাহের মেম্বার ছিলেন রত্নগর্ভ পিতা ও সততার প্রতীক

উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য থাইংখালীর বিশিষ্ট সমাজ সেবক মরহুম আলহাজ্ব মোজাহের আহমদ মেম্বারের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্নরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৭ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৪ টায় থাইংখালী উচ্চ বিদ্যালয় হলরুমে আলহাজ্ব মোজাহের আহমদ মেম্বার মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন এ মহতি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মরহুমের সুযোগ্য সন্তান পালংখালী ইউপি’র ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য আলতাফ আহমদ সওদাগরের সভাপতিত্বে ও থাইংখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক কমরুদ্দিন মুকুলের সঞ্চালনায় স্নরণ সভায় স্নৃতিচারণ করে প্রধান মেহমান হিসেবে বক্তব্য রাখেন চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আলম চৌধুরী।

বিশেষ মেহমান হিসেবে বক্তব্য রাখেন মরহুমের সুযোগ্য সন্তান,আলহাজ্ব মোজাহের আহমদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক,চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আক্কাস আহমদ ও চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মোজাহের আহমদ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এমএ মঞ্জুর,রহমতের বিল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজ উল্লাহ, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক ফরিদ আহমদ চৌধুরী,মাদ্রাসা শিক্ষক মাওলানা নুরুল আমিন সিদ্দিকী,থাইংখালী স্টেশন জামে মসজিদের খতিব মাওলানা হাফেজ আবদুল গফুর, মরহুমের নাতি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শাহাব উদ্দিন,টেকবাফের নয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নুরুল আকতার শিকদার
,রংগীখালী ফাজিল মাদ্রাসার শিক্ষক আকতারুল জলিল,
আওয়ামীলীগ নেতা আহমদ উল্লাহ সওদাগর, মোজাফফর আহমদ সওদাগর,আবুল মঞ্জুর সিদ্দিকী, পালংখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস শুক্কুর মেম্বার,মিছবাহ উদ্দিন সেলিম মেম্বার,বিএনপি নেতা রশিদ আহমদ,আবুল আলা হেলালী প্রমুখ সহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত থেকে মরহুমের জীবনীর উপর স্নৃতিচারণমুলক বক্তব্য রাখেন।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, মরহুম মোজাহের আহমদ মেম্বার কয়েক মেয়াদে পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত ইউপি সদস্য ছিলেন।স্থানীয় পর্যায়ে শালিশী ব্যবস্থায় অত্যন্ত সততার সহিত দায়ীত্ব পালন করে একজন ন্যায় বিচারক ও সমাজসেবক হিসেবে মানুষের হ্নদয়ে স্থান করে নিয়েছিলেন বলেই এখনো তাকে অন্তরে লালন করে যাচ্ছেন পালংখালী ইউনিয়ন বাসী।তিনি একজন আদর্শবান পিতাও।তার কনিষ্ট ছেলে আক্কাস আহমদ চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত। অন্য ছেলেরাও লেখাপড়ার পাশাপাশি সফল ব্যবসায়ী হিসেবেও সর্বজন বিদিত।

আলোচনা সভা শেষে মরহুমের আত্নার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া পরিচালবা করা হয়।সব শেষে উপস্থিতিদের জন্য রাতের ভোজন ব্যবস্থা করা হয়।

পাঠকের মতামত: