কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২

৩ সন্তানের মুখে বিষ ঢেলে নিজেও খেলেন রোহিঙ্গা পিতা, ২ জনের মৃত্যু

কক্সবাজারের টেকনাফে তিন সন্তানকে বিষপান করিয়ে নিজেও বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন মো. আনোয়ার নামে এক রোহিঙ্গা। আজ রবিবার ভোররাতে শাহপরীর দ্বীপ জালিয়া পাড়া এলাকা এ ঘটনা ঘটে। এর আগে একই সময়ে তিনি তার তিন শিশু সন্তানকে বিষপান করান। এতে সোমাইয়া (৭) নামের এক শিশু মারা যায়। অপর দুই শিশু মাহিয়া (৪) ও জাবেদকে (২) আশঙ্কাজনক অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শাহপরীর দ্বীপ জালিয়া পাড়ার স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, শিশুসন্তানসহ আত্মহত্যাকারী মো. আনোয়ার গত প্রায় দশ বছর আগে মিয়ানমার থেকে অবৈধভাবে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন। পরে তিনি শাহ পরীর দ্বীপ জালিয়া পাড়া এলাকায় বসতি গড়ে মাছধরার পেশায় নিয়োজিত হন। আট বছর আগে একই এলাকার ইমাম শরীফ ওরফে কানপ্রুর মেয়ে রেহেনা বেগমকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে দুই কন্যা ও ছেলে সন্তান রয়েছে। তবে স্বামী- স্ত্রী দুজনের মধ্যে প্রায় ঝগড়াঝাটি লেগে থাকতো।

সাবরাং ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার আব্দুস সালাম জানান, প্রতিবেশীদের মাধ্যমে জানতে পারি, গতকাল শনিবার দুপুরে আনোয়ার ও তার স্ত্রী রেহেনার মধ্যে পারিবারিক কলহ হলে রেহেনা তার তিন সন্তানকে স্বামীর কাছে রেখে বাপের বাড়ি চলে যান। এসময় আনোয়ার স্ত্রীকে আত্মহত্যার হুমকিও দেন। পরে আজ (রবিবার) সকালে প্রতিবেশীরা তার ঘরে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে বেড়ার ঘরে উঁকি দিয়ে তাদের পড়ে থাকতে দেখেন। তারা পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে ঘরের দরজা ভেঙে আনোয়ার ও তার শিশু সন্তান সোমাইয়াকে মৃত এবং অপর দুই শিশু মাহিয়া ও জাবেদকে জীবিত উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে।

শাহপরীর দ্বীপ পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই মিজানুর রহমান জানান, নিহত দুজনের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে ও আশঙ্কাজনক অবস্থায় অপর দুই শিশুকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: