কক্সবাজার, রোববার, ২০ জুন ২০২১

টিকটকে অশ্লীল ভিডিও তৈরি, নারীদের সঙ্গে অনৈতিক কাজে লিপ্ত তারা!

রাজধানীর একাধিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাংয়ের ১৮ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। গতকাল বুধবার রাতে রাজধানীর লালবাগ, তেজগাঁও এবং তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা এলাকায় পৃথক অভিযানে পরিচালনা করে দেশীয় অস্ত্রসহ তাদের আটক করা হয়।

আটক হওয়া কিশোর গ্যাং ‘আকাশ গ্রুপ’ও ‘সামী গ্রুপের’সদস্য। র‌্যাব-২ এর সহকারী পুলিশ সুপার মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল গতকাল বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত রাজধানীর লালবাগ, তেজগাঁও এবং তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা এলাকায় পৃথক অভিযানে পরিচালনা করে। এসময় ডাকাতি, ছিনতাইসহ নানা অপরাধে কিশোর গ্যাংয়ের ১৮ জন সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন- মো. আকাশ (২৭), ফয়সাল মাহমুদ (২৬), মো. ইমরান (১৯), মো. মিরাজুল করিম (২৩), মামুনুর রশিদ চৌধুরী ওরফে জনি (৩০), ফারহান আহমেদ (২৩), মো. আল আমিন (২৬), মাসুদ রানা ওরফে রাজ (২৪), মো. নাহিদ (১৮), মো. শান্ত (১৮), মো. রাব্বি আল মামুন (২৩), মো. ফেরদৌস (১৮), মো. সামি (১২), মো. সাগর (১৩), মো. আশিকুল ইসলাম (১২), মো. আলভি (১৪), মো. শান্ত ( ১৩) ও মো. নয়ন (১৩)।
আব্দুল্লাহ আল মামুন আরও জানান, আটকের সময় ১০টি ছুঁরি, ৩টি ড্যাগার, ২টি ক্ষুর, ২টি এন্টিকাটার ব্লেড, ২টি তালা ভাঙ্গার যন্ত্র, ২টি গ্রীল কাটার যন্ত্র এবং ৮টি মোবাইলসহ তাদের আটক করা হয়।

প্রাথমিক অনুসন্ধান ও জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, আটককৃত এই কিশোর অপরাধীরা স্থানীয়ভাবে পরিচিত কিশোর গ্যাং গ্রুপ- ‘আকাশ গ্রুপ’এবং ‘সামী গ্রুপ’-এর সদস্য। তারা সংঘবদ্ধভাবে বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে ডাকাতি, ছিনতাই, মাদক সেবন, ইভটিজিং ও চাঁদাবাজিসহ নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত।

র‌্যাব জানায়, গ্রেপ্তারকৃতরা টিকটক, লাইকিসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশ্লীল ভিডিও তৈরির মাধ্যমে ভাইরাল হওয়াসহ বিভিন্ন বয়সী নারীদের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক স্থাপনের মতো নানারকম অনৈতিক কাজে লিপ্ত আছেন বলে স্বীকার করেছে। র‌্যাব আরও জানায়, প্রায়ই তারা এলাকায় প্রভাব বিস্তারকল্পে দলবদ্ধ হয়ে সংঘাত সৃষ্টি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ত্রাসের পরিবেশ সৃষ্টি করে। এছাড়া নিজেদের গ্রুপের আধিপত্য বজায় রাখার জন্য অন্যান্য কিশোর গ্যাংয়ের সঙ্গে মারামারিসহ নানা সশস্ত্র সংঘর্ষেও তারা জড়িত বলে জানিয়েছে র‌্যাব

পাঠকের মতামত: