কক্সবাজার, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১

মাঠে নামছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে আলাদা ম্যাচে মাঠে নামবে দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) আলবেসিলেস্তারা তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে খেলবে ভোর ৬টায়। ম্যাচ হবে কারাকাস স্টেডিয়ামে। আর ভঙ্গুর ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ চিলি। সান্তিয়াগোতে ম্যাচটি শুরু হবে সকাল ৭টায়।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব এলেই যেন কেমন হয়ে যায় আর্জেন্টিনা। মহা পরাক্রমশালী দলটা কখনই খুব একটা ছন্দে থাকে না এ অঞ্চলের ম্যাচগুলোতে। হার জিতের সমীকরণ মেলাতে মেলাতে, প্রায়ই আসরে খেলা নিয়েও শুরু হয় তাদের টানাপোড়েন।

এবারও হয়নি তার ব্যতিক্রম। ৬ ম্যাচ খেলে মাত্র ৩টিতে জয় পেয়েছে স্ক্যালোনি বাহিনী। তবে আশার কথা এখনো কোন ম্যাচে হারতে হয়নি তাদের। সবগুলোতেই ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে আর্জেন্টিনা। যদিও কোপা আমেরিকার পর থেকে কিছুটা বদলে গেছে দলটা। দীর্ঘ সময়ের শিরোপা খরা কাটিয়ে আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে মেসি-মারিয়াদের।

তবে করোনা এবং কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে অনেক ফুটবলারকে না পাওয়ায় কিছুটা শঙ্কাও আছে তাদের মনে।

এ প্রসঙ্গে দলটির কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি বলেন, ‌মেসি খেলছে এটাই আমার জন্য বড় পাওয়া। সে ভালো ছন্দে আছে। দলবদলের কারণে অনুশীলন কম হলেও তাকে নিয়ে আমি চিন্তিত নই। সে সময়মতো জ্বলে উঠবে। আমি বেশ কয়েকজন নিয়মিত ফুটবলারকে পাচ্ছি না। তবে যারা আছে, তাদের ওপর আস্থা আছে আমার।‌

আর্জেন্টিনা মাঠের নামার এক ঘণ্টার মধ্যেই চিলিয়ানদের আতিথ্য নেবে ব্রাজিল। সান্তিয়াগোতে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হওয়ার আগে নিজেদের একাদশ নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কোচ তিতে।

আরও পড়ুন: ব্রাজিলের আরও দুই ফুটবলার ছিটকে গেল

৯ জন ফুটবলার হারিয়ে, একেবারেই ভঙ্গুর এক দলে পরিণত হয়েছে সেলেসাওরা। এক নেইমারে ভর করে এখন জয়রথ ধরে রাখার মিশন তাদের সামনে। এখন পর্যন্ত টানা ৬ ম্যাচে জিতে টেবিলে সবার ওপরে আছে ব্রাজিল। আশা টানা সপ্তম জয়টা আটকাবে না লা রোজাদের মাঠে।

এ বিষয়ে ব্রাজিলের কোচ তিতে জানান, ‌এই ম্যাচে যাদের পাব না, তাদের নিয়ে আর ভাবছি না। যারা আছে, আমি তাদের নিয়েই সন্তুষ্ট। নেইমার, মার্কুইনহোস, আলভেসরা অভিজ্ঞ ফুটবলার, তাদের ওপর আমি আস্থা রাখছি। বাকি অনেকেই দীর্ঘসময় পর এই জার্সিতে সুযোগ পেয়েছে। আমি আশা করি তারা নিজেদের জায়গা পোক্ত করবে।‌

অন্যদিকে প্রতিপক্ষ ব্রাজিল হওয়ায় চিন্তার ভাঁজ পড়েছে মার্টিন লাসার্তের কপালে। ভিদাল থাকলেও করোনার দোহাই দিয়ে একঝাঁক ফুটবলার রয়ে গেছেন নিজ নিজ ক্লাব টেন্টে।

চিলির কোচ মার্টিন লাসার্তে জানান,‌ ‘ইপিএলের ক্লাবগুলো যা করলো তা ঠিক না। আমরা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। বাছাইপর্ব আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচের আগে আমি সেরাদের পাচ্ছি না, এটা মেনে নেয়া কষ্টকর।‌’

এ মুহূর্তে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মাত্র একটি জয় পেয়েছে চিলি। যে কোন মূল্যে এ সংখ্যাটা বাড়াতে চায় তারা।

পাঠকের মতামত: