কক্সবাজার, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

সকলের সামনে বেরিয়ে এলো পরীমণির শক্তির উৎস

 

বাবা-মায়ের অকাল মৃত্যুর পর অসংখ্য ঝড়-ঝামেলার মধ্যে যার আশ্রয় ও স্নেহে বেঁচে আছেন পরী, তিনি তার নানা শামসুল হক গাজী।

পরীমণির আপনজন বলতে কেবল নানাই রয়েছেন। তাই নানাকে ঘিরে তার আবেগ-ভালোবাসার কমতি নেই। গ্রাম থেকে তাকে ঢাকায় নিয়ে এসে নিজের কাছেই রাখেন পরী। তবে মাস খানেক আগে পরীমণি যখন গ্রেফতার হন, তখন দুজনেই একা হয়ে পড়েন।

আদালতে পরীমণিকে দেখতে গিয়েছিলেন তার নানা শামসুল হক গাজী। প্রথমদিন পরীর দেখা না পেলেও পরে কথা বলার সুযোগ পান পরীমণির সাথে। পরীকে চিঠি পাঠিয়েছিলেন তার নানা শামসুল হক।

আজ রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) নিজের ফেসবুক পেজে সেই চিঠির ছবি শেয়ার করেছেন পরী। লেখা রয়েছে, নানু, আমি ভালো আছি। কোনো চিন্তা করবা না। তোমার সাথে শীঘ্রই দেখা দেব। নিচে লেখা শামসুল হক গাজীর নাম।

ছবিটির ক্যাপশনে পরীমণি লিখেছেন, একটা চিঠি। আমার সব শক্তির গল্প এখানেই। ধারণা করা হচ্ছে, পরীমণি যখন কারাবন্দি ছিলেন, তখনই এই চিঠি লিখেছেন তার নানা।

পাঠকের মতামত: