কক্সবাজার, শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১

মান‌বিক উদ্যোগ নিলেন উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান

আবুল কাশেম সাগর::

করোনা পরিস্থিতিতে সারা দেশের মানুষ দিশেহারা। এই পরিস্থিতে মার্চের ২৬ তারিখ হতে সরকার প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি হতে বের না হওয়াসহ বিভিন্ন নির্দেশনা জারি করেছেন। বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, ব্যাংক, বীমা, অার্থিক প্রতিষ্ঠান, মৌলিক প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রীর নির্দিষ্ট দোকান, ঔষদের দোকান ছাড়া জনগণের জান মাল নিরপত্তার স্বার্থে বন্ধ ঘোষণা করছে সরকাল।

এর ফলে শ্রমিক, দিনমজুর, রিক্সচালক, টমটম চালক, সিএনজি চালকসহ বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষ বেকার হয়ে পড়েছে। এতে করে পরিবার পরিজন নিয়ে এই শ্রেণীর জনগণ চরম দু:চিন্তায় পড়েছিলেন। কিন্তু সরকারের বিভিন্ন সহায়তামূলক উদ্যোগ নেওয়ার ফলে তারা নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে। এরই মধ্যে এসব অসহায় প্রকৃত নাগরিকদের সহায়তা প্রদানের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিস একটি ঘোষণা মামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

তিনি বৃহস্পতিবার সকালে uno ukhiya আইডি হতে জনসাধারণকে সহায়তার জন্য যে স্টেটার্সটি দিয়েছেন তা তুলে ধরা হলো…

আপনার সম্মানের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। বর্তমান করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ পরিস্থিতিতে আপনি কর্মহীন হয়ে পরেছেন, আপনার বাসায় খাবার সংকট থাকলে এবং সবার সামনে আপনি খাদ্য সহায়তা নিতে বিব্রত বোধ করলে অনুগ্রহ করে নিম্নোক্ত ফোন নম্বরে যোগাযোগ করুন। পরিচয় গোপন রেখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা আপনার বাসায় পৌছে দিবো।

যোগাযোগ :
01733373205
মো নিকারুজ্জামান
উপজেলা নির্বাহী অফিসার,
উখিয়া-কক্সবাজার।

উল্লোখ্য: তিনি দেশে করোনা পরিস্থিতি শুরু থেকে জনগণকে সচেতন করতে সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারণা, লিফলেট বিতরণ, মাইকিং করা, সরকারীভাবে দেয়া নির্দেশনা মাঠ পর্ষায়ে বাস্তবায়ন, মাস্ক প্রদান, জীবানুনাশক স্পে ছিটানো, জরুরী ভিত্তিতে নিম্ন আয়ের মানুষকে সহায়তা প্রদানসহ নানামূখী কার্যক্রমের মাধ্যমে জনগণের অাস্থাঅর্জন করেছেন।

এক মাঠ প্রশাসনের এ ধরণের সামাজিক সহায়তাকে বিরল বলে উল্লেখ করে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতনমহল। ইতিপূর্বে মায়ানমার হতে আসা গৃহহারা প্রায় ১২ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে সার্বিক আইন-শৃংখলা নিশ্চিতকরণে বলিষ্ট ভূমিকা রেখে জেলাজুড়ে প্রশংশিত হয়েছেন।

পাঠকের মতামত: