কক্সবাজার, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

চকরিয়া-পেকুয়ায় বন্যার পানিতে নিখোঁজ ভাই-বোনসহ ৪ শিশুর লাশ উদ্ধার

কক্সবাজারের চকরিয়া ও পেকুয়ায় পানির স্রোতে ভেসে যাওয়া ভাই-বোনসহ চার শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) সকালে চকরিয়ার বদরখালী থেকে একটি ও পেকুয়ার উজানটিয়া থেকে ভাই-বোনসহ তিন শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

 

নিহত শিশুরা হল- চকরিয়ার বদরখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ভেরুয়াখালী পাড়ার মো. এমরানের ছেলে মো. জিশান (৯), পেকুয়া উপজেলার উৎনটিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের নুরুল আলমের মেয়ে তাহিদা বেগম (১০), ছেলে আমির হোছাইন (৭) ও ছাবের আহমদের মেয়ে হুমাইয়া বেগম (৮)।

 

উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল করিম নিহত শিশুদের পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, বুধবার বিকেলে তিন শিশু পাশের সাহেবখালী খালে মাছ ধরা দেখতে যায়। সেখান থেকে তারা পাশে ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। ফুফুর বাড়ি থেকে বাড়ি ফেরার পথে সাহেবখালী খালে পড়ে নিখোঁজ হয়। পরে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে ওই খাল থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত তিন শিশুর মধ্যে তাহমিদা ও আমির হোছাইন আপন ভাই-বোন।

 

এদিকে গতকাল বুধবার সকালে চকরিয়া উপজেলার বদরখালীতে বন্যার পানিতে খেলা করছিল দশ বছর বয়সী মো. জিশান। এসময় সে বন্যার পানির স্রোতে ভেসে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর আজ বৃহস্পতিবার সকালে গোয়াখালী থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বদরখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরে হোসাইন আরিফ।

 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদ মাহমুদ ও পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ওমর হায়দার বলেন, পানির স্রোতে ভেসে নিহত শিশুদের লাশ উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: