কক্সবাজার, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

পরীক্ষামূলক উৎপাদনে গেল কক্সবাজারের মাতারবাড়ী তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র

কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ীতে কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের ৬০০ মেগাওয়াটের প্রথম ইউনিটে পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হয়েছে। শনিবার (২৯ জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কেন্দ্রটিতে উৎপাদন শুরু হয়। কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রকল্প পরিচালক আবুল কালাম আজাদ।

প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেড ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। সেক্ষেত্রে আগামী ডিসেম্বর মাসে প্রথম ইউনিট থেকে বাণিজ্যিকভাবে ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পগুলোর মধ্যে এই তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র অন্যতম।

 

PROMOTED CONTENT

ঢাকা’র লোকটি এখানে বাজি ধরে একটি আইফোন জিতেছেন!
Crickex
মাতারবাড়ীর ১ হাজার ৬০০ একরের পরিত্যক্ত লবণ মাঠে দেশের বৃহৎ ১ হাজার ২০০ মেগাওয়াট ধারণক্ষমতার এই তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নির্মাণে খরচ হচ্ছে প্রায় ৫১ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে জাপানের উন্নয়ন সংস্থা জাইকা দিচ্ছে প্রায় ৪২ হাজার কোটি টাকা। অবশিষ্ট টাকা বাংলাদেশ সরকারের।

কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানির মাতারবাড়ী সাইট অফিসের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন মজুমদার প্রথম আলোকে বলেন, আজ প্রকল্পের প্রথম ৬০০ মেগাওয়াট ইউনিটের পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে। প্রথম দিকে জ্বালানি তেল দিয়ে উৎপাদনে যাওয়া হবে। চার-পাঁচ দিন পর কয়লা দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে।

পাঠকের মতামত: