কক্সবাজার, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

সৈয়দপুরে বৃষ্টিপাতে তলিয়ে গেছে নিম্নাঞ্চল

অতি ভারী বৃষ্টিপাতে তলিয়ে গেছে নীলফামারীর সৈয়দপুরের নিম্নাঞ্চল। টানা বৃষ্টিতে বেড়েছে জনদুর্ভোগ। বাঁধগুলো রয়েছে হুমকিতে। এদিকে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত সৈয়দপুরে রেকর্ড করা হয়েছে। স্থানীয় আবহাওয়া অফিস ২৫৯ মিলিমিটার অতি ভারী বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে যা গত ৫ বছরে সর্বোচ্চ।

আজ রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। গত শুক্রবার থেকে এখনও পর্যন্ত বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। বৃষ্টির কারণে নিম্ন আয়ের মানুষ কাজে বের হতে পারেনি। তাদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কর্মস্থলে যেতে পোহাতে হচ্ছে দুর্ভোগ।

সৈয়দপুর আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেন জানান, সৈয়দপুরে টানা বৃষ্টিতে নিচু অঞ্চল পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। গত শনিবার সকাল ৯ টা থেকে রোববার সকাল ৯ টা পর্যন্ত ২৫৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। যেটা অতি ভারী বৃষ্টিপাত। বৃষ্টি আরও কয়েকদিন স্থায়ী হতে পারে বলে জানান তিনি।

সরেজমিনে দেখা যায়, বৃষ্টির কারণে শহরের মুন্সিপাড়া, বাঁশবাড়ী, হাতিখানা, নিয়ামতপুর, বানিয়াপাড়া, গোলাহাট, মিস্ত্রিপাড়া, নতুন বাবুপাড়াসহ শহরের বেশিভাগ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ঘরে ঘরে পানি, এছাড়া উপজেলার কামারপুকুর, কাশিরাম বেলপুকুর, খাতামধুপুর ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল কমপক্ষে এক হাঁটু পানির নিচে তলিয়ে গেছে। শহরের প্রতিটি সড়কে জলাবদ্ধতায় পানিতে বন্দি লোকজন। ড্রেনে পানি জমে থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

শহরের প্রধান সড়ক শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়ক, শহীদ ডা. শামসুল হক সড়কে হাঁটুপানি জমে গেছে। অনেক দোকানেও উঠেছে পানি। ফলে দোকানে বসে থাকার সুযোগও নেই দোকানিদের। প্রায় প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় পানি জমে থাকায় লোকজনের কষ্টের সীমা নেই। সেই সাথে শহরের জরাজীর্ণ ও ভাঙ্গাচোরা সড়কে প্রায় দুর্ঘটনা ঘটছে।

সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফয়সাল রায়না জানান, বৃষ্টিপাতে তাৎক্ষণিক ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর মেলেনি। আমরা সর্বাক্ষণিখ খোঁজ খবর রাখছি।

পাঠকের মতামত: