কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২০

কুতুবদিয়ায় অস্ত্রসহ ১২ মামলার আসামী ডাকাত বাদুইল্যা আটক

কাইছার সিকদার::

কুতুবদিয়ায় ডজন মামলার পলাতক আসামি ডাকাত বাদুইল্যা কে অস্ত্রসহ আটক করেছে কুতুবদিয়া থানা পুলিশ। আটক বাহাদুর আলম প্রকাশ বাদুইল্যা উত্তর ধুরং ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জুম্মার পাড়া এলাকার মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

গত কাল শুক্রবার (৩ জুলাই) রাত সাড়ে তিনটার সময় তাকে আটক করা হয়।

থানা সূত্রে জানা গেছে, কুতুবদিয়ার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম শফিকুল আলম চৌধুরীর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উত্তর ধুরুমং জুম্মাপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। সে সময় নারী নির্যাতন, অস্ত্র, খুন, ডাকাতি সহ ১২ মামলার আসামী বাহাদুর আলম প্রকাশ বাদুইল্যাকে দেশীয় তৈরি একটি বন্দুক (এলজি) ও দুই রাউন্ড কার্তুজ সহ আটক করা হয়। অভিযানে ওসির সাথে আরো ছিলেন, কুতুবদিয়া থানার এসআই শামসুল আলম ও এসআই প্রভাকর সহ সঙ্গীয় ফোর্স।

সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতেই ৮ ঘন্টার ব্যবধানে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। তার মধ্যে একজন ইয়াবা ব্যবসায়ী ও অন্যজন ডজন মামলার পলাতক আসামী। যাকে দেশীয় অস্ত্র ও কার্তুজসহ আটক করা হয়েছে। কুতুবদিয়ার সাধারণ জনগণ মনে করে নতুন ওসি যোগদান করার সাথে সাথে এ্যাকশন শুরু হয়েছে। কোন অদৃশ্য কারণে এ এ্যাকশন যেন থেমে না যায়।

কুতুবদিয়া থানার নবাগত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম শফিকুল আলম চৌধুরী জানান, মাদক ব্যবসায়ী যতই শক্তিশালী হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। কুতুবদিয়াবাসিকে একটি মেসেজ দিতে চাই- সন্ত্রাসী, মাদক কারবারি, ডাকাত, জলদস্যুদের আটক করতে মাননীয় পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসাইন স্যারের নির্দেশে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করবো। এতে কুতুবদিয়ার সকল মানুষের সহযোগিতা কামনা করছি।

ওসি আরো জানান, আটক ডাকাত বাদুইল্যার বিরুদ্ধে ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইন ১৯’এ ধারায় মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। যার মামলা নাম্বার-২। থানার এসআই শামসুল আলমকে এই মামলায় বাদী করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: