কক্সবাজার, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

উখিয়ায় গৃহবধূর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় স্বামী আটক

নাজিবুন নেসা, বয়স ২০ ছুইছুই, ভালোবেসে বিয়ে করেছেন উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের ইনানী বড় বটতলীর ৬নং ওয়ার্ডের মোহাম্মদ ফেরদৌসকে। ২ বছর আগে চট্টগ্রাম থেকে দুইজনেই পালিয়ে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে ৮ মাসের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে গলাই ফাঁস লাগানো অবস্থায় নাজিবুনের শুশ্বুর তাকে উদ্ধার করে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে নাজিবুনের পরিবারের দাবী তাঁকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। নিহত নাজিবুন নেসার স্বজনরা তাঁর গলাই এবং শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখেছেন বলেও জানান।

 

ব্যবসা করার জন্য ফেরদৌস টাকা চায়, যা না পেয়ে ফেরদৌস ও তার বোন মিলে নাজিবুন নেসাকে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করতেন বলে জানান তাঁর স্বজনরা।

নিহত নাজিবুন নেসার শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি, ঘটনার পর থেকেই বাড়িতে কেউ নেই বলে জানান প্রতিবেশীরা।

এদিকে নিহত নাজিবুন নেসার স্বামী মোঃ ফেরদৌসকে আটক করেছে উখিয়া থানার পুলিশ, গতকাল তাকে রামুর খুনিয়া পালং থেকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মোঃ আলী তাঁকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায় ২জন কে আাসামী করে নিহত নাজিবুন নেসার বাবা মামলা দায়ের করেছে। আটক স্বামীকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ।

পাঠকের মতামত: