কক্সবাজার, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শিক্ষাকেন্দ্র বন্ধের তথ্য বানোয়াট -পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শিক্ষাকেন্দ্র বন্ধ করা হয়েছে বলে কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে যে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে তার প্রতিবাদ জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শিক্ষাকেন্দ্র বন্ধের তথ্য বানোয়াট এবং মিথ্যা।

আজ রোববার (১৯ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য কোনো শিক্ষাকেন্দ্র বন্ধ করা হয়নি। ক্যাম্পে শুধুমাত্র অননুমোদিত প্রাইভেট কোচিং বা লার্নিং সেন্টার বন্ধ করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশনা অনুসরণ করে, এনজিও এবং আইএনজিওগুলো ক্যাম্পে প্রায় তিন হাজার শিক্ষা কেন্দ্রের মাধ্যমে (এফডিএমএন) রোহিঙ্গা শিশুদের অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা প্রদান করছে।

সম্প্রতি মিয়ানমার কারিকুলাম এবং মিয়ানমার ভাষা ব্যবহার করে ক্যাম্পে অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। যা তাদের উৎপাদনশীলতা উন্নত এবং রোহিঙ্গা শিশুদের ঐতিহ্যকে সমুন্নত রাখতে পারার পাশাপাশি প্রত্যাবাসনের পরে নিজ দেশে গিয়ে পুনঃএকত্রীকরণ করতে সহায়তা করবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কিছু অননুমোদিত বেসরকারি স্কুল, কোচিং সেন্টার এবং মাদরাসা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এসব অননুমোদিত প্রতিষ্ঠানের কার্যকলাপ বন্ধ করতে বলা হয়েছিল। সেসব শিক্ষাকেন্দ্রের কার্যক্রমের কারণে মূল শিক্ষাকেন্দ্রগুলো ক্ষতির মুখে পড়ছে। তবে সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ করে অনুমোদিত শিক্ষা কেন্দ্রগুলো চালু রয়েছে।

ইউনিসেফ বা ইউএনএইচসিআর কেউই অননুমোদিত কেন্দ্রগুলি বন্ধ করার বিষয়ে কোনো উদ্বেগ প্রকাশ করেনি বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

পাঠকের মতামত: