কক্সবাজার, বুধবার, ২৩ জুন ২০২১

উখিয়া হাসপাতালের ডাক্তারের সত্যায়িত ৩শ টাকা!

মুহাম্মদ হানিফ আজাদ, উখিয়া::

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়োজিত ডাক্তার এহেসানুল্লাহ সিকাদারের বিরুদ্ধে জন্ম সনদের ফরমে সত্যায়িত করতে গিয়ে জনপ্রতি ৩ শত টাকা করে নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

যার ফলে শতশত লোকজন দূভোর্গের স্বীকার হতে হচ্ছে। জন্ম সনদ করতে গিয়ে একজন মেডিকেল অফিসারের সত্যায়িত করতে হয় ফরমে।

এ ফরমে সত্যয়িত করতে গিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকতার্ রঞ্জন বড়–য়া রাজন সত্যায়িত করার দায়িত্ব দিয়েছে এই হাসপাতালের ডাক্তার এহেসানুল্লাহ সিকদারকে।

ভুক্তভোগীরা জানান হাসপাতালে গিয়েও টাকা দেওয়ার পরেও ২দিন পরে আসতে হবে বলে জানা গেছে। যার কারণে উখিয়া শতশত লোকজন দূভোর্গের স্বীকার হয়ে জন্মসনদ করতে পারতেছে না বলে অভিযোগ তুলেছেন।

এ উপজেলার পাতাবাড়ী গ্রামের মোক্তার আহম্মদ। সে জানায় ডাক্তার এহেসানুল্লাহ সিকদার তার নিকট থেকে ফরম সত্যায়িত করতে ৩শত টাকা নিয়েছে।

উল্লেখ্য যে, উখিয়া উপজেলা রোহিঙ্গা কবলিত এলাকা হওয়া দীর্ঘদিন ধরে জন্ম সনদ অনলাইন বন্ধ রাখে সরকার। কয়েকদিন ধরে সরকার অনলাইন চালু করায় ইউনিয়ন পরিষদ গুলোতে মানুষ ভিড় জমছে। আর স্কুলেও জন্ম সনদ ছাড়া শিশুদের ভর্তি করা হয়না বলে জানিয়েছেন ডেইলপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক গফুর আলম।

অভিযোগ উঠেছে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকতার্ রঞ্জন বড়–য়া রাজন ও ডাক্তার এহেসানুল্লাহ সিকদার মিলে টাকা ভাগ বসিয়ে এ কান্ড সৃষ্টি করেছে। এব্যাপারে জানতে চাইলে কক্সবাজার সিভিল সার্জন মাহবুবুর রহমান জানান বিষয়টি জরুরী ভিত্তিতে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযোগক্ত ডাক্তার এহেসানুল্লাহ সিকদারের নিকট মুঠোফোনে বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকতার্ বলেন একটা ফরমে সত্যায়িত করতে ৩শত টাকা নিলে বেশি নেয়নি।

পাঠকের মতামত: